1. alokitoj@gmail.com : Sobuj Bala : Sobuj Bala
  2. alokitojanapadbd@gmail.com : Alokito Janapad : Alokito Janapad
  3. jmitsolution24@gmail.com : support :
মাদারীপুরে শিশু হত্যায় ৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড - Alokito Janapad
শুক্রবার, ২১ জানুয়ারী ২০২২, ১১:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ম্যাটস বাগেরহাটের ছাত্রদের উদ্যোগে ইসলামী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণ লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে হত্যা মামলায় পিতা-পুত্রের যাবজ্জীবন নড়াইলে ডিবির হাতে মাদক ব্যবসায়ী আটক মণিরামপুরে মাদ্রাসার পিয়নের বিরুদ্ধে ছাত্রীর সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বহিরাগত ডাক্তার এনে সিজার করাসহ নানা অনিয়ম আর অব্যবস্থাপনার অভিযোগ বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীকে অপহরণ ও মুক্তিপণ আদায় বরফের চাদরে ঢেকেছে সিমলা, উত্তর ভারতে শৌত প্রবাহে কাপছে সাধারণ মানুষ নতুন বিজ্ঞাপণ চিত্রে ঢালিউড কুইন অপু বিশ্বাস মাদারীপুরে পরিবহন-ইজিবাইক সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫ রূপগঞ্জে হেলথ কেয়ার ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের উদ্বোধন

মাদারীপুরে শিশু হত্যায় ৩ আসামির মৃত্যুদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : সোমবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২১
  • ১১৫ Time View

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার সেনদিয়া গ্রামে শিশু হত্যা মামলায় তিন আসামির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এ সময় একজনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।মাদারীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নিতাই চন্দ্র সাহা সোমবার সকালে এ রায় ঘোষণা করেন। বিচারক মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি তাদের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলো— রাজৈর উপজেলার পশ্চিম স্বরমঙ্গল গ্রামের রফিক হাওলাদারের ছেলে রাজিব হাওলাদার (৩৮), কোদালিয়া বাজিতপুর গ্রামের মুহিত গাছীর ছেলে রিমন হোসাইন ওরফে ইমন গাছী (৩২) ও পিরোজপুর জেলার ভৈরমপুরের রফিকুল ইসলাম মোল্লার ছেলে শফিকুল ইসলাম মোল্লা (৩১)।

এ ছাড়া এ মামলায় বাগেরহাট জেলার সেলিম হাওলাদারের (৪১) বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

মাদারীপুর পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. সিদ্দিকুর রহমান সিং এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২০ সেপ্টেম্বর রোববার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে রাজৈর উপজেলার খালিয়া ইউনিয়নের সেনদিয়া জামে মসজিদে আরবি পড়তে গিয়ে নিখোঁজ হয় টুকু সরদারের মেয়ে আদুরী আক্তার (০৫)।

নিহতের বাবা টুকু সরদার বাদী হয়ে ২০১৫ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ৬ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরও পাঁচজনকে আসামি করে রাজৈর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার পর ওই মসজিদের ইমাম শফিকুল ইসলামকে রাজৈর থানা পুলিশ গ্রেফতার করলে তিনি পুলিশের কাছে খুনের ঘটনা স্বীকার করেন। এ সময় তার দেওয়া তথ্যানুযায়ী মসজিদের পাশ থেকে আদুরী আক্তারের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়।

পরে মামলার চার আসামিকে পুলিশ গ্রেফতার করলে তিন আসামি উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে অদ্যাবধি পলাতক রয়েছে। মামলার রায়ের দিন মামলার এক আসামি রিমন হোসাইন ওরফে ইমন গাছী আদালতে উপস্থিত ছিল। আজ তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড ও একজনকে খালাস প্রদান করেন আদালত।

নিহতের বাবা টুকু সরদার বলেন, আমার মেয়ে হত্যার রায়ে আমি খুশি হয়েছি। সরকারের কাছে একটাই দাবি এই ফাঁসির রায় যেন দ্রুত কার্যকর হয়।

মাদারীপুর পাবলিক প্রসিকিউটর মো. সিদ্দিকুর রহমান সিং বলেন, ২০১৫ সালের ২০ সেপ্টেম্বর আদুরী নামে এক শিশুকে হত্যা করে লাশ বস্তাবন্দি করে পুঁতে রাখা হয়। পরে পুলিশ ঘটনার সঙ্গে জড়িত মসজিদের ইমামকে গ্রেফতার করে এবং তার দেওয়া তথ্যমতে লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়।  আজ বিজ্ঞ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ নিতাই চন্দ্র সাহা এ মামলায় রায় প্রদান করেন। রায়ে তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেন ও একজনকে বেকসুর খালাস দেন। এই রায়ে আমরা রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট।

আলোকিত জনপদ ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন
https://www.facebook.com/alokitojanapad

আলোকিত জনপদ টুইটার আইডিটি ফলো করুন
https://twitter.com/alokito_janapad

দেশ বিদেশের সব খবর সবার আগে জানতে আলোকিত জনপদ ইউটিউব চ্যানেলের সাথেই থাকুন।
ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই আলোকিত জনপদ এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন।
বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে সয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

আলোকিত জনপদ এর ইউটিউব চ্যানেল SUBSCRIBE করতে ক্লিক করুন
https://www.youtube.com/channel/UCNzUOMDlhwvg5q6Mu_x3khQ

আলোকিত জনপদ .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© 2021 - Alokitojanapad.com. প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Development by: JM IT SOLUTION