1. alokitoj@gmail.com : Sobuj Bala : Sobuj Bala
  2. alokitojanapadbd@gmail.com : Alokito Janapad : Alokito Janapad
  3. jmitsolution24@gmail.com : support :
গোপালগঞ্জ সদরে এক ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যের বিরুদ্ধে উৎকোচ নিয়ে ঘর না দেওয়ার অভিযোগ - Alokito Janapad
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভিন্ন ধর্মের যুগলের প্রেমে বাধা; চুল কেটে শাস্তি মির্জাপুরে গোড়াই হাইওয়ে থানার উদ্যোগে জাতীয় সড়ক দিবস-২০২১পালিত পিরোজপুরের স্বরুপকাঠীতে ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ কর্মসূচি পালন রাজৈরে নাম পরিচয়হীন মুখ থেথলানো যুবকের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার জাতির পিতার সমাধিতে আইনজীবী সমিতির নবনির্বাচিত কমিটির নেতৃবৃন্দের শ্রদ্ধা নিবেদন গোপালগঞ্জে পাওনা টাকা চাওয়ার জেরে এক ব্যক্তিকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সামনে মসজিদের জমিতে ভবন নির্মাণ বন্ধে মানববন্ধন সুজানগরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিশেষ আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা ভারতের করোনার টিকা নেওয়া হয়েছে ১০০ কোটি মানুষের; দাবি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রলায়ের পথিকৃৎ প্রকাশনী এর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলেন কথাসাহিত্যিক ও কবি শফিক রিয়ান

গোপালগঞ্জ সদরে এক ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যের বিরুদ্ধে উৎকোচ নিয়ে ঘর না দেওয়ার অভিযোগ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১
  • ৭ Time View

গোপালগঞ্জে “জমি আছে ঘর নেই” এ প্রকল্পের আওতায় সদর উপজেলার ১১নং হরিদাসপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুন্সী মকিদুজ্জামান ও ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেন নুরু মোল্লার বিরুদ্ধে উৎকোচ নিয়ে ঘর না দেওয়া এবং উৎকোচের টাকা ফেরত না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (১১ অক্টোবর) ওই এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে জানাগেছে, “জমি আছে ঘর নেই” এ প্রকল্পের আওতায় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ১১নং হরিদাসপুর ইউনিয়নে বিগত ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরে এ প্রকল্পের কথা বলে গ্রামের প্রায় অর্ধশত হতদরিদ্র পরিবারের নিকট থেকে ২০ হাজার টাকা থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত আদায় করেছেন বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন।

ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধী জাহাঙ্গীর মোল্যা(৫২), বেল্লাল মোল্লা, মাসুম মোল্লা, রুটি বিক্রেতা মাহামুদ, ইসলাম সরদার, শেফালী বেগম, ফুলি বেগম, ইনজাহার মোল্লা, ময়না বেগম, তোরাব মোল্লা প্রমুখ উপস্থিত থেকে প্রতিবেদকদের নিকট এ অভিযোগ করেন। তারা আরো অভিযোগ করে বলেন, আমরা ঘর তো পেলাম না, সুদে লোন এনে, কিস্তি তুলে এবং সংসারের মূল্যবান জিনিস খুইয়ে এ টাকা আমরা নুরু মেম্বারের হাতে তুলে দেই। নুরু মেম্বার চেয়ারম্যানের মাধ্যমে আমাদেরকে ঘর বরাদ্দ দিবেন বলে জানালে আমরা তার কথায় বিশ্বাস করে তাকে টাকাগুলা দেই। পরে ২/৩ বছর পার হলেও সে আমাদেরকে ঘরতো দেইনি এবং এখন টাকাও ফেরত দেয় না। এ বিষয়ে আমরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সহ গোপালগঞ্জ-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি মহোদয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এ বিষয়ে ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেন নুরু মোল্লার সাথে প্রতিবেদকের কথা হলে সে জানায়, আমি টাকা নিয়ে চেয়ারম্যানকে দিয়েছি এটা সত্য। যদি আমার ফেরত দেওয়া লাগে। আমি দিয়ে দিবো।

চেয়ারম্যান মুন্সী মকিদুজ্জামানের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, টাকা নেওয়ার প্রশ্নই আসে না। আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে একটি মহল আমাকে হেয় করতে আমার নাম জড়িয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তবে খাগাইল, হরিদাসপুর সহ বিভিন্ন এলাকার মেম্বাররা এ ধরনের সমস্যা তৈরি করেছিলো। পরবর্তীতে, আমার হস্তক্ষেপে সেগুলো মিটমাট হয়েছে। এটাও এখন জানলাম। আমি অসুস্থ বর্তমানে ঢাকায় রয়েছি। গোপালগঞ্জে ফিরে এ সমস্যার সমাধান করব ইনশাল্লাহ।

আলোকিত জনপদ .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© 2021 - Alokitojanapad.com. প্রকাশক কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Design & Development by: JM IT SOLUTION