বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৭:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মাদারীপুরে ডিবি পুলিশের জালে ৫৫০ পিচ ইয়াবা সহ আটক ৩ জন ফরিদপুরে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেটকে আটক ঈদে ঘরমুখো মানুষের হয়রানী ও টিকেট কালোবাজারী বন্ধে পুলিশ ও র‌্যাবের সাব-কন্ট্রোল রুম চালু চাঁপাইনবাবগঞ্জে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া মাহফিল নড়াইলে মোটরসাইকেল-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে স্কুলছাত্র নিহত আরোহী গুরুতর আহত ফরিদপুরে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু লোহাগড়ায় হত্যা মামলায় ৩ জনের ফাঁসির আদেশ ফরিদপুর- ভাংগা সড়কে ট্রাক ও পিকআপ সংঘর্ষ, আহত ২ রংপুরে দুলা ভাইয়ের হাতে শ্যালক খুন নড়াইল জেলা পুলিশের অভিযানে গত ২৪ ঘন্টায় বিভিন্ন অপরাধে গ্রেফতার ১৪ জন

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত শিশুর মৃত্যু।

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৩৮ Time View
কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি: সশস্ত্র রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক রোহিঙ্গা শিশু মারা গেছে।
মৃত শিশুর নাম জিয়াবুর রহমান (১৪)। সে উখিয়ার কুতুপালং নিবন্ধিত রোহিঙ্গা শিবিরের ই ব্লকের মো. আরিফ উল্লাহর ছেলে।
কুতুপালং নিবন্ধিত রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরের রোহিঙ্গা কমিউনিটির নেতা (চেয়ারম্যান) হাফেজ জালাল আহমদ বলেন, ‘গত ৬ অক্টোবর রাত ৮টার দিকে বিবাদমান দুই রোহিঙ্গা গ্রুপের মধ্যে যে রক্তক্ষয়ী সহিংসতার ঘটনা ঘটেছিল সেদিন সন্ত্রাসীরা অপহরণ করে গোপন স্থানে আটকে নির্মম নির্যাতন চালায় শিশু জিয়াবুরের উপর। অপহরণের দুদিন পর গত ৮ অক্টোবর সন্ত্রাসীরা আহত অবস্থায় শিবিরের একটি সেতুর নীচে ফেলে যায় শিশুটিকে। ওইদিন রাতে তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ ভোররাত ৩টায় সে মারা যায়।’
কুতুপালং রোহিঙ্গা নিবন্ধিত শিবিরের ক্যাম্প ইনচার্জ খলিলুর রহমান জিয়াবুর রহমানের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা শাহীন মোহাম্মদ আব্দুর রহমান নিশ্চিত করেছেন যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক রোহিঙ্গা শিশু মারা গেছে। তার মরদেহ ময়নাতদন্ত হবে কিনা, সে বিষয়ে এখনও পুলিশ কিছু জানায়নি বলে যোগ করেন এই চিকিৎসা কর্মকর্তা।
গত ৬ অক্টোবর রাতে কুতুপালং রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে নিজেদের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই রোহিঙ্গা সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে সংঘটিত সহিংসতার ঘটনায় ঘটনাস্থলে একজন স্থানীয় বাংলাদেশি মাইক্রোবাস চালকসহ চার জন খুন হন। আহত হন অন্তত ২০ জন। এ ঘটনায় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত বাংলাদেশি এক মাইক্রোবাস চালক গত বৃহস্পতিবার সন্ত্রাসীদের আস্তানা থেকে ছাড়া পান গুরুতর আহত অবস্থায়। তার নাম নুরুল বশর।

ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category