রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
প্রস্তাবিত বাজেটে জনগণের জীবনযাত্রার উন্নয়নে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে মৌলভীবাজারে বন্যায় ৪৫০টি গ্রাম প্লাবিত: খোলা হয়েছে ৯৮টি আশ্রয় কেন্দ্র সুনামগঞ্জ জেলার বন্যা উপদ্রুত এলাকা পরিদর্শনে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী রংপুরের বাজারে উঠতে শুরু করেছে সুস্বাদু হাঁড়িভাঙা আম মাদারীপুরে ডিবি পুলিশের জালে ৫৫০ পিচ ইয়াবা সহ আটক ৩ জন ফরিদপুরে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেটকে আটক ঈদে ঘরমুখো মানুষের হয়রানী ও টিকেট কালোবাজারী বন্ধে পুলিশ ও র‌্যাবের সাব-কন্ট্রোল রুম চালু চাঁপাইনবাবগঞ্জে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া মাহফিল নড়াইলে মোটরসাইকেল-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে স্কুলছাত্র নিহত আরোহী গুরুতর আহত ফরিদপুরে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

কুষ্টিয়ায় মহাসড়কে ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের চাঁদাবাজি

কুষ্টিয়া, প্রতিনিধি
  • Update Time : বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ১৪৭ Time View

পুলিশ ক্যাম্পের মাত্র কয়েক গজের মধ্যেই মহাসড়কে থামানো হচ্ছে পণ্যবাহী ট্রাক-পিকআপ, ট্রাক্টর। এরপরই চালক ও তাঁর সহকারীর কাছ থেকে চাঁদার টাকা আদায় করছে বলে অভিযোগ উঠেছে কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক মালিক শ্রমিক ইউনিয়নের বিরুদ্ধে।

কয়েকজন শ্রমিক হাতে লাল ফ্লাগ নিয়ে রশিদ দিয়ে মহাসড়কে চাঁদার টাকা আদায় করছে। এতে বাদ যাচ্ছে না এই মহাসড়ক দিয়ে চলাচলকারী অবৈধ যান ট্রলিও। গেলো ছয়মাস ধরে এই মহাসড়কে এভাবেই প্রকাশ্যে চাঁদাবাজির দৃশ্য দেখা যায় কুষ্টিয়া-পাবনা আঞ্চলিক মহাসড়কের কুষ্টিয়ার মিরপুর থানাধীন তালবাড়ীয়া পুলিশ ক্যাম্প সংলগ্ন মহাসড়কে।

দিনরাত পালাক্রমে ট্রাক-পিকআপ, ট্রাক্টরের চালকদের থামিয়ে সার্ভিস চার্জ আদায়ের নামে চলছে বেপরোয়া চাঁদাবাজি। আর চাঁদার টাকা না দিলে মহাসড়কে হয়রানির শিকার হন এসব যানবাহনের চালকরা। পুলিশ-প্রশাসনের সামনে মহাসড়কে এমন চাঁদাবাজি হলেও দেখেও দেখছেন না তারা।

এতে ক্ষোভ-প্রকাশ করেছেন এই মহাসড়ক দিয়ে চলাচলকারী চালক ও তার সহকারীরা। অভিযোগ উঠেছে, এই চাঁদাবাজির সাথে জড়িত হাইওয়ে পুলিশসহ কর্তা ব্যক্তিরা। সবাইকে ম্যানেজ করে তোলা হয় চাঁদার টাকা এমনটাই অভিযোগ করেছেন চালক ও তাঁর সহকারীরা। চাঁদার টাকা আদায়কারী শ্রমিকদের সাথে কথা হলে নাম-প্রকাশ না করার শর্তে তারা জানান, জেলা ট্রাক মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আকবর ও সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুকের নির্দেশেই এই চাঁদা তোলা হয়।

কিন্তু এই টাকা কোথায় যায়, সেই হিসাব জানা নেই তাদের। প্রতিদিন পাঁচশত টাকা হাজিরায় এই টাকা আদায়ের কাজ করেন তাঁরা। এই মহাসড়ক দিয়ে চলাচলকারী ভুক্তভোগী ট্রাক চালকদের সাথে কথা হলে তারা জানান, এ যেন মগের মুল্লুক।

জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের শ্রমিক ইউনিয়ন কমিটির নামে মহাসড়কে ট্রাক-পিকআপ, ট্রাক্টর থেকে টাকা আদায় করা হচ্ছে। এই মহাসড়ক দিয়ে যতবার যাব ততবারই ট্রাকপ্রতি ৬০টাকা। অন্যান্য জেলায় মহাসড়কে এমন চাঁদাবাজি না থাকলেও এখানে পুলিশ ক্যাম্প সংলগ্ন এই মহাসড়কে এভাবেই প্রতিটি পণ্যবাহী ট্রাক-পিকাপ ও ট্রাক্টরের চালকদের রশিদ হাতে ধরিয়ে দিয়ে প্রকাশ্যে চাঁদাবাজি করা হচ্ছে।

দিনরাত সমানতালে জেলা ট্রাক মালিক গ্রুপের শ্রমিক ইউনিয়নের লোকজনের চাঁদাবাজিতে আমরা অতিষ্ঠ হলেও ভয়ে মুখ খুলতে পারি না। প্রতিবাদ করলেই গাড়ির গ্লাস ভেঙে দেয়, করা হয় মারধরও। অনেকটাই নিরুপায় হয়ে এমন অন্যায় সহ্য করে আসছি আমরা।

কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুকের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন,কেন্দ্রীয় শ্রমিক ফেডারেশনের নির্দেশে মহাসড়কে চেকপোস্ট (তল্লাশিচৌকি) বসিয়ে ৬০টাকা করে নেওয়ার হচ্ছে।

বাইরের জেলার ট্রাক থেকে ৬০ টাকার বেশি চাঁদা তোলার কথা নয়। আমরা সব জায়গায় ম্যানেজ করেই এই টাকা তোলা হচ্ছে। মহাসড়কে এমন চাঁদাবাজি বন্ধ করার দাবী জানাচ্ছি এতে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার মহোদয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category