রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৯:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
প্রস্তাবিত বাজেটে জনগণের জীবনযাত্রার উন্নয়নে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে মৌলভীবাজারে বন্যায় ৪৫০টি গ্রাম প্লাবিত: খোলা হয়েছে ৯৮টি আশ্রয় কেন্দ্র সুনামগঞ্জ জেলার বন্যা উপদ্রুত এলাকা পরিদর্শনে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী রংপুরের বাজারে উঠতে শুরু করেছে সুস্বাদু হাঁড়িভাঙা আম মাদারীপুরে ডিবি পুলিশের জালে ৫৫০ পিচ ইয়াবা সহ আটক ৩ জন ফরিদপুরে ভুয়া ম্যাজিস্ট্রেটকে আটক ঈদে ঘরমুখো মানুষের হয়রানী ও টিকেট কালোবাজারী বন্ধে পুলিশ ও র‌্যাবের সাব-কন্ট্রোল রুম চালু চাঁপাইনবাবগঞ্জে এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া মাহফিল নড়াইলে মোটরসাইকেল-ট্রাক মুখোমুখি সংঘর্ষে স্কুলছাত্র নিহত আরোহী গুরুতর আহত ফরিদপুরে নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

পেকুয়ায় ৬ বছরের শিশু যৌন নিপিড়নের স্বীকার।

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ১১৮ Time View
পেকুয়া প্রতিনিধি কক্সবাজারের পেকুয়ায় ৬বছরের শিশু যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে এমন অভিযোগ তুলেছে ভিকটিম পরিবার । সোমবার (১৩অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের রায়বাপের পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ভিকটিম শিশু ওই এলাকার আসহাব উদ্দিনের মেয়ে বলে জানা যায়। ঘটনার পরপরই অভিযুক্ত নুরুল আলম পালিয়ে গেছে। নুরুল আলম একই এলাকার মৃত মোকতার আহমদের ছেলে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। ভিকটিমের চাচা মনছুর আলম জানায়, শিশু কন্যাকে নুরুল আলম ফুসলিয়ে পলিথিন দিয়ে ঘেরা একটি নির্জন জায়গায় নিয়ে যৌন নিপীড়ন করে। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। মান সম্মানের ভয়ে রাতে আমরা বিষয়টি গোপন রেখেছিলাম। ভিকটিমের দাদী লায়লা বেগম জানায়, বাড়ির পাশে একটি নির্জন জায়গায় নুরুল আলম আমার নাতনীকে নিপীড়ন করে। আমি দেখে ফেললে সে পালিয়ে যায়। স্থানীয় ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন জানায়, প্রথমে বিষয়টি তারা স্বীকার করেনি। পরে নিপীড়নের শিকার হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভিকটিমের পরিবার। শিশুটিকে একজন পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গিয়েছেন। এলাকার লোকজনও বলাবলি করতে শুনেছি। ইউএনও ও চেয়ারম্যানকে নিপীড়নের বিষয়টি জানিয়েছি। ইউপির চেয়ারম্যান ছৈয়দনুর জানায়, শিশু নিপীড়নের কথা শুনেছি। মেম্বারকে সত্যতা যাচাই করতে ঘটনাস্থল পাঠিয়েছি। স্থানীয়রা জানায়, নুরুল আলম লম্পট প্রকৃতির লোক। সে একজন টমটম চালক। আমরা তার উপযুক্ত শাস্তি চাই। পাড়ালীয়া একজন ব্যবসায়ী জানায়, বিকেলে নুরুল আলম দোকানে নাস্তা করেছে। এর কিছুক্ষন পর শুনেছি শিশু নিপীড়নের কথা। পল্লী চিকিৎসক মহিউদ্দিন জানায়, ধর্ষনের কথা বললে আমি পেকুয়া সরকারী হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেছি। আমি কোন চিকিৎসা দেয়নি।
পেকুয়া থানার ওসি (তদন্ত) কানন সরকার জানায়, এখনো বিষয়টি নিয়ে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category