শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৩:০৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
তিস্তা নিজস্ব অর্থায়নে মহাপ্রকল্প বাস্তবায়নের দাবি অনির্দিষ্টকালের জন্য কুবি অর্থনীতি শিক্ষার্থীদের ক্লাস -পরীক্ষা বর্জন বোন বাড়ী থেকে আর বাড়ি ফেরা হলোনা বরগুনার বৃদ্ধ সুলতান খানের বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে গোপালগঞ্জের নবনিযুক্ত জেলা ও দায়রা জজ ড. মোঃ আতোয়ার রহমানের শ্রদ্ধা যশোরের শার্শা সীমান্তে ভারতীয় বিএসএফ’র গুলিতে শামিম নামে এক চোরাচালানী আহত ভালো নেই কালকিনির মৃৎশিল্পীরা লোহাগড়া পৌর সভার সড়কের বেহাল দশা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী’র শ্রদ্ধা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে স্থানীয় সরকার বিভাগের নতুন সচিব আবু হেনা মোরশেদ জামান -এর শ্রদ্ধা নিবেদন রাজশাহী বাগমারার তাহেরপুরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার অভিযোগ

সাবেক মন্ত্রী গৌর চন্দ্র বালার সংক্ষিপ্ত জীবন কাহিনী

সবুজ বালা, স্টাফ রিপোর্টার
  • Update Time : শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪
  • ২৪৬ Time View

গৌরচন্দ্র বালা (মৃত্যু ১৮ই জুন, ২০০৫) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিবিদ ছিলেন। তিনি পূর্ব পাকিস্তান সরকারের সময় একবার মন্ত্রী হয়েছিলেন।[১]গৌরচন্দ্র বালা

জন্ম : ভাদ্র, রবিবার, ১৩৩০, গ্রাম: উল্লাবাড়ী, ইউনিয়ন: কদমবাড়ী, থানা : রাজৈর, জেলা : মাদারীপুর।

পিতা : রাজমোহন বালা, মাতা : নারায়ণী বালা, ভাইবোন : নিত্যানন্দ বালা, চৈতন্য বালা, তীর্থবাসী দেবী, হরীতকী দেবী

বিবাহ : ২৯ জুন ১৯৫২, স্ত্রী : অঞ্জলি বালা

সন্তান-সন্ততি : বিপ্লব বালা, প্রণব বালা, তন্দ্রা বালা, পান্না বালা, তৃপ্তি বালা

শিক্ষা:

প্রাথমিক শিক্ষা : জলিরপাড় পাঠশালা, মাধ্যমিক: খালিয়া রাজারাম ইনস্টিটিউট, ম্যাট্রিকুলেশন : ১৯৪৩, উচ্চ মাধ্যমিক: ১৯৪৫, দৌলতপুর হিন্দু একাডেমি, খুলনা, বিএ : ১৯৪৭, রিপন কলেজ, কলকাতা, এমএ (বাংলা) : ১৯৪৯, কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়, আইন, প্রিলিমিনারি : ১৯৫২, কলকাতা ল’ কলেজ, এলএলবি : ১৯৬১, ঢাকা ল’ কলেজ

চাকুরি :

পোস্টাল বিভাগ, কেন্দ্রীয় ভারত সরকার, ১৯৪৯ – ১৯৫৩

আইন পেশা :

ফরিদপুর বার কাউন্সিল, ১৯৬২ সাল থেকে ১৯৯০ হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্ট বার কাউন্সিল সদস্য। ১৯৮৩

কর্মজীবন :

প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য : ১৯৫৪

গণপরিষদ সদস্য : ১৯৫৫-

যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রিপরিষদ সদস্য : ১৯৫৬

আওয়ামী লীগ নমিনেশন বোর্ড সদস্য : ১৯৭০ ও ১৯৭৩

ছয় দফা আন্দোলনে ফরিদপুরে এবং ফাতেমা জিন্নাহর প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিসেবে নির্বাচনকালে ১৯৬৪-এ দক্ষিণবঙ্গে বিশেষ দায়িত্ব পালন

প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য : ১৯৭০

কার্যকরি চেয়ারম্যান : মুক্তিযুদ্ধকালের দক্ষিণ-পশ্চিম জোন-২

সামাজিক কর্ম :

উল্লাবাড়ী প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল প্রতিষ্ঠা সভাপতি : সৎকার সমিতি, ফরিদপুর।

মৃত্যু : ২ আষাঢ়, শুক্রবার ১৪১২, ১৮ জুন ২০০৫।

রবিবার ১৩৩০,গ্রাম উল্লাবাড়ী,ইউনিয়ন:কদমবাড়ি, থানা:রাজৈর,জেলা:মাদারীপুর।

পিতা: রাজমোহন বালা, মাতা নারায়ণী বালা, ভাইবোন নিত্যানন্দ বালা, চৈতন্য বালা,

তীবানী দেবী, হরীতকী দেবী বিবাহ : ২৯ জুন ১৯৫২, স্ত্রী : অঞ্জলি বালা,

সন্তান-সন্ততি : বিপ্লব বালা, প্রণব বালা, তন্দ্রা বালা, পান্না বালা, তৃপ্তি বালা

শিক্ষা:

প্রাথমিক শিক্ষা : জলিরপাড় পাঠশালা, মাধ্যমিক: খালিয়া রাজারা ইনস্টিটিউট, ম্যাট্রিকুলেশন: ১৯৪৩, উচ্চ মাধ্যমিক: ১৯৪৫, দৌলতপুর হিন্দু একাডেমি, খুলনা, বিএ: ১৯৪৭, রিপন কলেজ, কলকাতা, এমএ (বাংলা): ১৯৪৯, কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয়, আইন, প্রিলিমিনারি ১৯৫২, কলকাতা ল’ কলেজ, এলএলবি ১৯৬১. ঢাকা ল’ কলেজ

পোস্টাল বিভাগ, কেন্দ্রীয় ভারত সরকার, ১৯৪৯-১৯৫৩

চাকুরি

আইন পেশা

ফরিদপুর বার কাউন্সিল, ১৯৬২ সাল থেকে ১৯৯০

হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্ট বার কাউন্সিল সদস্য : ১৯৮৩

কর্মজীবন:

প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য : ১৯৫৪

গণপরিষদ সদস্য : ১৯৫৫

যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রিপরিষদ সদস্য : ১৯৫৬

আওয়ামী লীগ নমিনেশন বোর্ড সদস্য : ১৯৭০ ও ১৯৭৩ নির্বাচনকালে ১৯৬৪-এ দক্ষিণবঙ্গে বিশেষ দায়িত্ব পালন

হয় দফা আন্দোলনে ফরিদপুরে এবং ফাতেমা জিন্নাহর প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিসেবে

প্রাদেশিক পরিষদ সদস্য : ১৯৭০

কার্যকরি চেয়ারম্যান : মুক্তিযুদ্ধকালের দক্ষিণ-পশ্চিম জোন-২

সামাজিক কর্ম:

উন্নাবাড়ী প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল প্রতিষ্ঠা সভাপতি : সৎকার সমিতি, ফরিদপুর

মৃত্যু: ২ আষাঢ়, শুক্রবার ১৪১২, ১৮ জুন ২০০৫।

রাজনৈতিক জীবন

গৌরচন্দ্র বালা ২৫শে মার্চ ১৯৫৪ সালে উঃ-পূঃ ফরিদপুর থেকে পাকিস্তান গণপরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন।[২] ১৯৫৮ সালে তিনি পূর্ব পাকিস্তানের খাদ্যমন্ত্রী হন।[৩]

এক বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী ছিলেন গৌরচন্দ্র বালা। ১৯৫৪ সালে পাকিস্তান প্রাদেশিক পরিষদের নির্বাচনে ক্ষমতাসীন মুসলিম লীগের মন্ত্রী দ্বারকানাথ বাড়–রির জামানত বাজেয়াপ্ত করে তিনি নির্বাচিত হন। ১৯৫৬ সালে তিনি যুক্তফ্রন্ট মন্ত্রিপরিষদে প্রথমে বন ও পরে খাদ্যমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬২ থেকে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত আইয়ুববিরোধী আন্দোলনে তিনি বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন। সত্তরের নির্বাচনে তিনি প্রাদেশিক পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন।

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মুক্তিবাহিনীর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন গৌরচন্দ্র বালা।

স/বা

ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category